14.7 C
Düsseldorf

শুয়ে-বসে আরাম আয়েশে থাকা মানুষেরাই কি করোনার লক্ষ্যবস্তু?

Must read

গোলজার হোসাইন খান
গোলজার হোসাইন খান
আমি সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর একজন অবসরপ্রাপ্ত এসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার।অতি সাধারণ মানুষ। কোন উচ্চাভিলাষ নেই। সাংসারিক বোধবুদ্ধি শূন্যের কোঠায়। হেরে যাওয়া মানুষের পাশে থাকি।এড়িয়ে চলি স্বার্থপরতা।বিনম্র শ্রদ্ধায় নত হই সৃষ্টিশীল-পরিশ্রমী মানুষের প্রতি আর ভালবাসি আমার পেশাকে।

আমাদের জীবনধারাই এখন এমন হয়ে দাঁড়িয়েছে যে, আমাদের বডি মুভমেন্ট আগের চেয়ে ঢের কমে গিয়েছে। এর উপর আবার সময়ের অভাবে অনেকেই ব্যায়াম-ট্যায়াম থেকে দূরে থাকেন। এক সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, যাঁদের বডি মুভমেন্ট কম এবং ব্যায়ামের অভ্যাস নেই তাঁরা কিন্তু চট করে করোনার কোপে পড়ে যেতে পারেন। থাকতে পারে মৃত্যুর ঝুঁকিও।

যেসব রোগী কমপক্ষে দু’বছর ধরে শারীরিকভাবে নিষ্ক্রিয় অবস্থায় আছেন, তাঁদের কোভিডে মৃত্যুঝুঁকি বেশি। এক গবেষণায় এ তথ্য দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, শারীরিকভাবে নিষ্ক্রিয় অবস্থায় ছিলেন বা ব্যায়াম একেবারেই করতেন না– এমন কোভিড রোগীদের মৃত্যুর আশঙ্কা বেশি
বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, ব্রিটিশ জার্নাল অব স্পোর্টস মেডিসিনে গতকাল মঙ্গলবার এ গবেষণা প্রকাশিত হয়। প্রায় ৫০ হাজার মানুষের ওপর পরিচালিত গবেষণায় বলা হয়েছে, কোভিডে আক্রান্ত রোগীদের স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে শারীরিকভাবে নিষ্ক্রিয়তা অন্যতম। গবেষণায় অংশ নেওয়া রোগীদের গড় বয়স ছিল ৪৭ বছর। প্রতি পাঁচজনের তিনজন ছিলেন নারী।

সংশ্লিষ্ট গবেষকেরা বলছেন, ধূমপান, স্থূলতা ও দুশ্চিন্তাও কোভিডের স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে পড়ে। তবে শারীরিক নিষ্ক্রিয়তা এগুলোর তুলনায় বেশি গুরুতর। গবেষণাপত্রে লেখা হয়েছে, ‘শারীরিক নিষ্ক্রিয়তা গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি।’

এর আগে করোনার স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে বেশি বয়স, ডায়াবেটিস, স্থূলতা ও হৃদ্‌রোগের বিষয়গুলো আলোচিত ছিল। তবে এখন পর্যন্ত শুয়েবসে থাকার অভ্যাসটি এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ছিল না। এবার আনুষ্ঠানিকভাবে গবেষণায় বিষয়টি উঠে এল।

- Advertisement -spot_img

More articles

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ আপডেট