20 C
Düsseldorf

ফ্রান্সে ৪ টি দেশ থেকে আগতদের উপর কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক

Must read

যেহেতু দেশটি তৃতীয় ধাপের সংক্রমণের সাথে লড়াই করে যাচ্ছে তাই তারা করোনা ভাইরাস এর নতুন নতুন সংক্রমক রুপ এর উদ্ভব এবং এর বিস্তার নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন।

ফ্রান্সে আগত আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, চিলি এবং দক্ষিন আফ্রিকার ভ্রমনকারীদের ১০ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকা বাধ্যতামূলক। শনিবার দেশটির প্রধান মন্ত্রির কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে যে, করোনা ভাইরাস এর নতুন সংক্রমক পি১ রূপটি অত্যন্ত উদ্বেগজনক তাই নতুন করে এ সিদ্ধান্তি নেয়া হয়েছে।

ফ্রান্সে ভ্রমণকারিদের জন্য গৃহীত নতুন পদক্ষেপ
আর্জেন্টিনা, চিলি এবং দক্ষিন আফ্রিকার ভ্রমণকারীদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার বাধ্যতামূলক পদক্ষেপ আগামিকাল থেকে ধীরে ধীরে শুরু হবে এবং আগামী শনিবার থেকে পুরোপুরি কার্যকর করা হবে। কর্ত্রীপক্ষ ফ্লাইট এর আগে এবং পরে চেক করে নিশ্চিত করবে যাত্রিরা তাদের পৃথক থাকার ব্যাবস্থা গ্রহন করেছে কিনা। ভ্রমণকারীদের অতিরিক্ত ভাবে ৩৬ ঘণ্টার কম পুরনো (পি সি আর) টেস্ট এর নেগেটিভ রিপোর্ট বিমানে আরোহণ এর পূর্বে দেখাতে হবে। পুলিশও তাদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে সাহায্য করবে। কেউ যদি কোয়ারেন্টাইন না মানে তাকে জরিমানা করা হবে।

ব্রাজিল থেকে ফ্রান্সের ফ্লাইট আপাতত স্থগিত করা আছে। তবে তা আবার শনিবার থেকে শুরু হবে, যারা ফ্রান্সে বসবাস করেন বা ফ্রান্স এর পাসপোর্টধারী অথবা যারা ইউরোপীয় ইউনিয়ন এর পাসপোর্টধারী তাদের জন্য। তাদেরকেও কোয়ারেন্টাইন নিয়ম মেনে চলতে হবে, যখন তারা ভ্রমণ করবেন।

ফ্রান্সে তৃতীয় ধাপের কোভিড-১৯
ফ্রান্সে করোনা ভাইরাস এর তৃতীয় ধাপের সংক্রমণ এর বিরুদ্ধে লড়াই এর অংশ হিসেবে কোয়ারেন্টাইন এর বিধিনিষেধ পুনর্গঠন করা হয়েছে। সম্প্রতি এখানে রাতেরবেলা কারফিউ জারি থাকছে, অপরিহার্য দোকান বন্ধ ঘোষণা এবং দেশের অভ্যন্তরে ভ্রমণ সিমাবদ্ধ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় এর তথ্য অনুযায়ী ,শনিবার এখানে ৩৫৮৬১ জন করোনা আক্রান্ত কে সনাক্ত করা হয়েছে। ৬ কোটি ৭০ লক্ষ জনসংখ্যার মধ্যে ১ কোটি ২৩ লক্ষ জন এ পর্যন্ত করোনার কমপক্ষে ১ টি ডোজ পেয়েছে।

- Advertisement -spot_img

More articles

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ আপডেট