14.7 C
Düsseldorf

ফরাসী প্রেসিডেন্টের প্রতি খোলা চিঠি

Must read

গোলজার হোসাইন খান
গোলজার হোসাইন খান
আমি সোনালী ব্যাংক লিমিটেড এর একজন অবসরপ্রাপ্ত এসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার।অতি সাধারণ মানুষ। কোন উচ্চাভিলাষ নেই। সাংসারিক বোধবুদ্ধি শূন্যের কোঠায়। হেরে যাওয়া মানুষের পাশে থাকি।এড়িয়ে চলি স্বার্থপরতা।বিনম্র শ্রদ্ধায় নত হই সৃষ্টিশীল-পরিশ্রমী মানুষের প্রতি আর ভালবাসি আমার পেশাকে।

মহামান্য ম্যাক্রোঁ সাহেব,

আসসালামু আলাইকুম। আপনারে দুইখান কথা কইতে মন চায়,মাইন্ড কইরেন না।প্রথমেই আপনারে সালাম দিছি এই জন্য যে এইটা আমাগো নবীর শিক্ষা।

মাথায় রাইখেন, যে মহামানবকে নিয়ে আপনেরা ক্যারিকেচার করে মজা পান তার অনুসারী একলক্ষ মুসলিম সৈনিক প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির আগ্রাসন থেকে ফ্রান্সকে রক্ষায় ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। তারমধ্যে শাহাদাৎ বরন করেছিলেন ষাট হাজার সৈনিক।প্রান বিসর্জনকারী মুসলমানদের সম্মানে ১৯২৬ সালে প্যারিসে নির্মিত হয় গ্রান্ড মসজিদ যা আত্মত্যাগের সাক্ষী হিসাবে ফ্রান্সকে রক্ষায় মুসলিমদের মহিমা ঘোষণা করছে। এই মসজিদের উদ্বোধনী নামাজে আপনার দাদা আমলের প্রেসিডেন্ট গাষ্টন ডোমারগো সাহেব উপস্থিত ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে হিটলারের গ্যাস চেম্বার থেকে রক্ষা করতে হাজার হাজার ইহুদিকে মুসলিম জন্ম সনদ দিয়ে এই মসজিদে আশ্রয় দেয়া হয়েছিল।

মিস্টার প্রেসিডেন্ট! এত তাড়াতাড়ি সব ভুলে গেলেন? আপনাদেরই প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ বেনজামিন স্টোরার মন্তব্যগুলি পড়ে দেখুন। সব জানতে পারবেন।

মনে রাখবেন, আপনি যে দেশের প্রেসিডেন্ট হিসাবে অহমিকায় অন্ধ হয়েছেন সেই দেশ রক্ষায় প্রাণ দিয়েছিল ষাট হাজার মুসলিম সেনা। আরেকটা বিষয় মাথায় রাখতে বিনীত অনুরোধ করি,’আল্লাহ ছাড় দেন কিন্তু ছেড়ে দেন না।’

আপনার শুভ বুদ্ধির উদয় হোক।

- Advertisement -spot_img

More articles

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ আপডেট