7.7 C
Düsseldorf

এলজিবিটি নিয়ে সংঘাতে ভ্যাটিকান ও ইটালি

Must read

এলজিবিটি প্লাস (LGBTQI+) বিল নিয়ে ভ্যাটিকানের সঙ্গে ইটালির বিরোধ তীব্র হলো। ভ্যাটিকান মনে করছে, নতুন আইনে ক্যাথলিকরা বিপাকে পড়বেন।

এলজিবিটি ও বিকলাঙ্গদের বিরুদ্ধে হেট ক্রাইম বন্ধ করতে বিল এনেছেন ইটালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি। কিন্তু তাতে আপত্তি ভ্যাটিকানের। তাদের মতে, হোমোফোবিয়া বন্ধ করতে যে খসড়া আইন করা হয়েছে, তা চালু হলে ক্যাথলিকদের ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হবে। ভ্যাটিকানের কর্মকর্তারা এই আইনের বিরোধিতা করছেন কারণ, এই আইন মানলে ক্যাথলিকদের সমলিঙ্গের বিয়ে মেনে নিতে হবে। বিরোধিতা করলে শাস্তি পেতে হবে।

দ্রাঘি নিজেও একজন ক্যাথলিক। কিন্তু তিনি বলছেন, ”ইটালির পার্লামেন্ট স্বাধীনভাবে আইন করতে পারে। আর ইটালি হলো ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র, ধর্মীয় রাষ্ট্র নয়।” তিনি বলেছেন, ”আমাদের আইনগত ব্যবস্থা সবসময় দেশের সংবিধান ও আন্তর্জাতিক প্রতিশ্রুতিকে মেনে চলে।”

বিলে বলা হয়েছে, এলজিবিটি প্লাস ও বিকলাঙ্গদের প্রতি হেট ক্রাইম করলে বা তাদের প্রতি বিভেদমূলক আচরণ করলে শাস্তি পেতে হবে। কিন্তু এই বিলটি বেশ কয়েক মাস ধরে সিনেটে আটকে রয়েছে। তার মূল কারণ, রক্ষণশীলরা এই বিলের বিরোধিতা করছেন। গত নভেম্বরে বিলটি পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে পাস হয়ে গেছে।

যারা এই পরিবর্তন চাইছেন, তারা ভ্যাটিকানের মনোভাবে বিরক্ত। তাদের মতে, ভ্যাটিকান রাজনৈতিক বিষয়ে মাথা গলাচ্ছে। নিম্নকক্ষের স্পিকার রবার্তো ফিকো বলেছেন, ”পার্লামেন্ট সার্বভৌম, তারা কোনও হস্তক্ষেপ মানে না।”
কিন্তু দক্ষিণপন্থি দলগুলি ভ্যাটিকানকে সমর্থন করছে। পোপ অবশ্য প্রকাশ্যে এই বিল নিয়ে মুখ খোলেননি।

তবে ২০১৩ সালে পোপ হওয়ার পর ফ্রান্সিস সমকামীদর বিষয়ে উদার মনোভাব দেখিয়েছেন। গত বছর একটি তথ্যচিত্রে দেখা গেছে তিনি সমলিঙ্গের দম্পতিদের সিভিল ইউনিয়ন সমর্থন করছেন। কিন্তু তিনিই আবার গত মার্চে ভ্যাটিকানের একটি বিবৃতিকে সমর্থন করেছেন, যেখানে বলা হয়েছে. ঈশ্বর পাপীদের আশীর্বাদ করতে পারেন না। তাই সমলিঙ্গের বিয়েকে আশীর্বাদ করা সম্ভব নয়।
-রয়টার্স

- Advertisement -spot_img

More articles

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করে আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে অনুগ্রহ করে আপনার নাম লিখুন

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ আপডেট